ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ উপ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন জিয়াউল হক মৃধা

জেলা

 

মনিরুজ্জামান মনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের উপ নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়ালেন জাতীয় পার্টির সাবেক এমপি স্বতন্ত্র প্রার্থী এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা। আজ জিয়াউল মৃধার ছেলে প্রদীপ মৃধা বিষয়টি জানিয়েছেন। এর আগে জিয়াউল হক মৃধা স্বাক্ষরিত নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর একটি চিঠি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এতে উল্লেখ করা হয়, আসন্ন উপ নির্বাচন পরবর্তী সংসদীয় মেয়াদকাল অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত। এই সময়ের মধ্যে জনগনকে দেয়া আশ্বাস ও কাঙ্খিত ওয়াদা পূরণ করা অত্যন্ত দুরূহ। জনগন ও ভোটারের কাছে উন্নয়নের মিথ্যা আশ্বাস দেয়া প্রতারণা। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটরদের ম্যান্ডেট নিয়ে জয়ী হয়ে উন্নয়নের পরিকল্পনা, আশ্বাস এবং অসমাপ্ত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করবেন বলে উল্লেখ করেন। চিঠিতে তিনি তার নেতাকর্মী, শুভাকাঙ্খীসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

জিয়াউল হক মৃধার ছেলে প্রদীপ মৃধা জানান, তার পিতার স্বাক্ষরিত চিঠিতেই নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর কারণ উল্লেখ রয়েছে। এদিকে দলীয় চাপে তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন কি না তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ব্যস্ত কথা বলতে চাইনা। উল্লেখ্য, জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক আহবায়ক ও সাবেক কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান এডভাকেট জিয়াউল হক মৃধা এর আগে এ আসন থেকে দুবারের সংসদ সদস্য ছিলেন। আগামী ১ ফেব্রয়ারী আসন্ন (সরাইল-আশুগঞ্জ) উপ নির্বাচনে তিনি আপেল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করার কথা ছিল। তিনি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় এ আসনে বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা উকিল আব্দুস সাত্তার ভুইয়া(স্বতন্ত্র প্রার্থী), আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আবু আসিফ আহমেদ (স্বতন্ত্র প্রার্থী) ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী আব্দুল হামিদ ভাসানী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন।

উল্লেখ, গত ১১ ডিসেম্বর বিএনপির দলীয় সিদ্ধান্তে জাতীয় সংসদ থেকে পদত্যাগ করেন উকিল আব্দুস সাত্তার ভুইয়া। এতে এ আসনটি শূন্য হওয়ায় আগামী ১ ফেব্রয়ারী ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২ আসনের উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *